How to Correction Voter Details || Voter Card details Correction by online ||

19

ভোটার কার্ডের ভুল সংশোধন করবেন কিভাবে ? ভুল সংশোধন করুন নিজের ভোটার কার্ড এর ||

সম্প্রতি সারা দেশ জুরে ভারতের নির্বাচন কমিশান ভোটার লিস্টের তথ্য যাচাই করন প্রক্রিয়া শুরু করেছে। এখানে আপনি আপনার ও আপনার পরিবারের ভোটার তালিকার ডিটেল দেখতে আর সেখানে কিছু ভুল থাকলে সেই ভুল ঠিক করতে পারবেন।

এই তালিকা সংশোধন আপনারা অনলাইনে NSVP র ওয়েবসাইট থেকে করতে পারবেন আবারা আপনার নিকটতম ভোটার তালিকা সংশোধনাগারেও করতে পারবেন। এখান আজকে আমরা আপনাদের এই প্রক্রিয়া কি করে অনলাইনে বাড়িতে বসেই করতে পারবেন সেই বিষয়ে জানাব।

Voter ID Correction Last Date ভোটার আইডি votar Id Correction 2019 || How to change your votar Id Card ?

প্রথমে এই কাজ করার শেষ সময় ছিল 30 সেপ্টেম্বর 2019 আর এখন এই সময়সীমা বারিয়ে 15 অক্টোবর 2019 পর্যন্ত করা হয়েছে।

এখানে আপনারা যেমন নিজের নাম বা ডিটেল ঠিক করা যাবে তেমনি আপনারা এখানে কেউ মারা গেলে তার নাম বাদ দিতে পারবেন আবার নতুন কার বয়স 18 বছর হলে তা করতে পারবেন। আর এই কাজ অনলাইনে সহজে করা যাবে।

প্রথম আমরা এই কাজের জন্য কি কি দরকার তা দেখে নেব

ভোটের ডিটেল সংশোধন করার দরকারি প্রস্তুতি :-

  • পরিবারের সব ভোটারের তথ্য যাচাইয়ের জন্য একটি মোবাইল নাম্বার সঙ্গে রাখতে হবে।
  • পরিবারের সব ভোটারের ভোটার কার্ডের নাম্বার সঙ্গে রাখা।
  • যদি কোন ভুল ঠিক করতে হয় তবে এন্ট্রির সময়ে যে ভিল ঠিক করতে হবে সেই বিষয়ে ডকুমেন্ট সঙ্গে রাখা।
  • এই ক্ষেত্রে, আধার কার্ড, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইন্সেস, রেশন কার্ড, এই সব জিনিসের ছবি(2MB র কম) সফট কপি সেভ করে রাখতে হবে।
  • ছবি ঠিক করতে হলে ছবি সফট কপি (2MB র কম) সঙ্গে রাখতে হবে।
  • নতুন কারোর নাম তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করতে(2019 য়ের জানুয়ারি তে বয়স 18 হলে)হলে তার সব দরকারি ডকুমেন্ট সঙ্গে রাখা
  • এবার কি করে এই এনরোলনেট ভেরিফাই করবেন
  • প্রথমে www.nsvp.com য়ে যেতে হবে
  • এবার এখানে ক্যাপচা ও অন্যান্য ডিটেল দিয়ে লগ ইন করতে হবে।
  • ফোন নাম্বার দেওয়ার জায়গায় ফোন নাম্বার দিতে হবে।
  • এবার চেক করতে হবে
  • নতুন রেজিস্ট্রেশানের জন্য।
  • এবার ফোনে একটি OTP আসবে সেই OTP নির্দিষ্ট স্থানে দিতে হবে।
  • এবার পাসওয়ার্ড দিতে হবে আর তা কনফার্ম করতে হবে।

রেজিস্ট্রেশানের পরের স্টেপ

  • আবার www.nsvp.com য়ে যেতে হবে আর লগ ইন করতে হবে
  • এখানে ইউসার আইডি আর আগে দেওয়া পাসওয়ার্ডদিতে হবে
  • এবার EVP ট্যাবে গিয়ে 4টি ট্যাব পাওয়া যাবে।
  • ভোটার সেলফ ডিটেলস
  • প্লিং স্টেশান ফিডব্যাক
  • ফ্যামিলি লিস্টিং অ্যান্ড অথেন্টিকেশান
  • আনরোল্ড মেম্বার
  • এবার প্রথম ট্যাবে গিয়ে মানে নিজের ডিটেল ভেরিফাইয়ের ক্ষেত্রে ভটার তালিকার পাশে ভিউ ডিটেল অপশান থাকবে
  • এখানে নিজের নাম আর ভোটার তালিকার ডিটেল দেখা যাবে। এখানে দুটি অপশান থাকবে সব বিবরন ঠিক আছে আর একটিতে থাকবে ঠিক নেই
  • যদি সব ডিটেল ঠিক থাকে তবে পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, আধার কার্ড, রেশান কার্ড, ইত্যাদি ডকুমেন্টের একটি স্ক্যান দিতে হবে। কি কি ডকুমেন্ট দেওয়া যাবে তা এখানে ডিটেলে দেওয়া থাকবে।
  • আর যদি সব ঠিক না থাকে
  • তবে কি ঠিক নেই তা চেকবক্সে এন্ট্রি করা যাবে।
  • আর এখানে যা ঠিক করতে হবে সেই বিষয়ে একটি ডিটেল দিতে হবে
  • আর শেষে সাবমিট করলে একটি ফর্ম আসবে সেখানে 8 নম্বর ফর্ম অনুসারে তা আবার সাবমিট করতে হবে।
  • পরিবারের লোকের লোকজনের নাম যাচাই করার উপায়
  • ঐ একই পোর্টালে গিয়ে ইউজার আইডি আর পাসওয়ার্ড দিয়ে লগ ইন করতে হবে
  • এবার এখানে EVP ট্যাবে গিয়ে ফ্যামিলি লিস্টিং ট্যাবে যেতে হবে
  • আর এখানে নিজের নাম আর সিরিয়াল নাম্বার দেওয়া হবে তা র পাসে অ্যাডঃ সেলফ ফ্যামিলি অপশানে ক্লিক করতে গবে। আর নিজেকে ঐ পরিবারের সদস্য হিসাবে যুক্ত করতে হবে। ড্রপ ডাউন বক্সে স্মপ্রতক দিতে হবে আর ফ্যামিলি মেম্বার অ্যাড করতে হবে।
  • এবার যাকে অ্যাডঃ করতে চান তার EPIC নাম্বার দিতে হবে আর সেখানে ড্রপ ডাউনে তার সঙ্গে নিজের সম্পর্ক জানাতে হবে ।
  • এবার নিচে স্টেইনবগ উইথ আস বা নট স্টেইং উইথ আস করতে হবে। আর সেহানে নট স্টেইয়িবং উইথ আসে সিফট আর ডিসিসড দুটি অপশান আসবে আর মধ্যে সঠিক টি বাছতে হবে।
  • আর এবার নিচে অ্যাড অপশানে গিয়ে ব্যাক্তির নাম অ্যাড করতে হবে।
  • সবার নাম অ্যাড হয়ে গেলে সেখানে ইয়েস অপশানে ক্লিক করতে হবে আর তা সাবমিট করতে হবে। এটি একবারে হবে একবার সাবমিট করলে আর কাউকে অ্যাড করা যাবে না।

  • এবার বাকিদের ডিটেল জাচাই করার জন্য সদস্যদের নাম ফ্যামিলি লিস্টিং আর অথেন্টিকেশান ট্যাবে যেতে হবে আর ফ্যামিলি ভেরিয়ফিকেশান সিলেক্ট করতে হবে।
  • এখানে আপ[নারা সবার তথ্য জাচাই করতে পারবেন নিজের টি যেভাবে করেছিলেন সে ভাবে।
  • আর যদি বাড়ির কোন 16 বা তার বেশি বয়সের ব্যাক্তির নাম না তঘাকে তবে তা আনরোল্ড মেম্বারে দিতে হবে আর সেখানে জন্ম তারিখ সহ অন্যান্য ডিটেল দিতে হবে।
  • আর এই সব তথ্য দিলে ERO র কাছে একটি ফর্ম তৈরি হয়ে চলে যাবে।

নোট:- আপনার বুঝতে বা অন্যান্য কিছু সমস্যা হলে আপনারা কমেন্ট করে জানাবেন ? আমাদের টিম আপনাদের সাহায্য করার জন্য প্রস্তুত রয়েছে । আপনাদের একটু সাহায্য করতে পারলে আমরা খুব খুশি হব।।

Leave a Reply

Your e-mail address will not be published. Required fields are marked *